জাতীয় সংবাদ সারাদেশ

যাত্রাবাড়ী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস দুর্নীতিমুক্ত দাবী

Written by CrimeSearchBD

গত বছরের সেপ্টেম্বরে কেরানীগঞ্জ উপজেলার তেঘরিয়া ইউনিয়নের ঝিলমিল প্রকল্পে স্থানান্তরিত হয় যাত্রাবাড়ী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস। এ অফিস থেকে ঢাকার ১৩টি থানার বাসিন্দাদের নতুন পাসপোর্ট করা ও নবায়নসহ এ সম্পর্কিত সব সেবা দেওয়া হচ্ছে। থানাগুলো হল- যাত্রাবাড়ী, ডেমরা, শ্যামপুর, কদমতলী, খিলগাঁও, শাজাহানপুর, সবুজবাগ, ওয়ারী, কোতোয়ালি, সূত্রাপুর, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ, নবাবগঞ্জ ও দোহার।
যাত্রাবাড়ী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস এর উপ-পরিচালক জামাল হোসেন গত মে, ২০২০ এ দায়িত্ব নেন। তিনি ইতি পুর্বে যশোর পাসপোর্ট অফিসে দায়িত্বে ছিলেন। তিনি যাত্রাবাড়ী যোগদানের পর নিজ ও তার অফিসকে দুর্নীতি মুক্ত ঘোষনা করেন ও অফিসের সেবা ও সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে মনোযোগ দেন। তৃতীয় তলায় বায়ো এনরোলমেন্ট এর পাশে মনোরোম পরিবেশে সুপেয় পানীয়র ব্যবস্থা করেন। অফিস কে দালাল মুক্ত করতে প্রবেশগেটে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা করেন ও সম্পুর্ন অফিসকে সিসি ক্যমেরার আওতায় নিয়ে আসেন।
যাত্রাবাড়ী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস থেকে এই পর্যন্ত ৫০,০০০ (পঞ্চাশ হাজার) ই পাসপোর্ট ডেলিভারী হয়েছে জানান উপ-পরিচালক জামাল হোসেন। উক্ত আঞ্চলিক অফিসে রয়েছে হেল্প ডেস্ক, ডিজিটাল ডিসপ্লে, রোহিঙ্গা ডাটাবেজ চেকের ব্যবস্থা ও নারী পুরুষের জন্য আলাদা কাউন্টার। এছাড়াও রয়েছে নারী পুরুষের জন্য নামাজের সু-ব্যবস্থা। যারা অতি জরুরী ই-পাসপোর্ট পেতে ইচ্ছুক তাদের জন্য আলাদা লাইনে আবেদন জমা দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ই-পাসপোর্ট প্রবর্তনে বাংলাদেশ পাসপোর্টের নিরাপত্তা আরও বৃদ্ধি পাবে এবং ই-গেট ব্যবহার করে যাত্রীগণ সহজ ও স্বাচ্ছন্দে দেশে-বিদেশে ভ্রমণ করতে পারবে। এ ব্যবস্থা বাস্তবায়িত হলে বাংলাদেশ পাসপোর্টের মান আরও উন্নত হবে এবং গ্লোবাল পাসপোর্ট পাওয়ার র্যাংকিংয়ে পাসপোর্টের মান বাড়বে। ফলে বাংলাদেশি নাগরিকের জন্য পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের ভিসা পাওয়া সহজতর হবে, যা আমাদের জাতীয় মর্যাদা বৃদ্ধি, অর্থনৈতিক অগ্রগতি এবং আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে সম্পর্ক উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।
দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশে প্রথম ই-পাসপোর্ট চালু করা হচ্ছে এবং ই-পাসপোর্ট চালুর ক্ষেত্রে ১১৯তম বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।
সূত্র জানায়, ই-পাসপোর্টের জন্য অনলাইনে আবেদন করা যাবে। পাশাপাশি পিডিএফ ফরম ডাউনলোড করে হাতেও পূরণ করা যাবে। ফরম পূরণের সময় ছবি সত্যায়ন করতে হবে না। তবে বয়স্কদের ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্র ও অপ্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে জন্মনিবন্ধন সনদ দাখিল বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।সূত্র জানায়, ই-পাসপোর্টের জন্য অনলাইনে আবেদন করা যাবে। পাশাপাশি পিডিএফ ফরম ডাউনলোড করে হাতেও পূরণ করা যাবে। ফরম পূরণের সময় ছবি সত্যায়ন করতে হবে না। তবে বয়স্কদের ক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্র ও অপ্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে জন্মনিবন্ধন সনদ দাখিল বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।
উপ-পরিচালক জামাল হোসেন বলেন, “গ্রাহক জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে অনলাইনে আবেদন করে শিডিউল মত চলে আসলে কোন হয়রানী ব্যতিত ই-পাসপোর্ট সংগ্রহ করতে পারবে। আমি নিজেই গ্রাহকদের সকল তথ্য প্রদান করে থাকি। আমি দালাল প্রতিহত করতে বিভিন্ন সময়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগীতা নেই।“
পাসপোর্ট অধিফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আইয়ুব চৌধুরী সারাবাংলাকে বলেন, ‘পাসপোর্ট করতে আসা অনেকেই জানেন না কীভাবে কী করতে হবে। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এক শ্রেণির লোক টাকার বিনিময়ে কাজ করে দিচ্ছেন। এতে কেউ পাসপোর্ট পাচ্ছেন, আবার কেউ প্রতারিত হচ্ছেন। দালালদের কাউকে জবাবদিহিতার আওতায় সম্ভব হয় না। এ অবস্থায় এজেন্ট নিয়োগ দেওয়া হলে অন্তত কেউ প্রতারিত হবে না। এজেন্টদের একটা নির্দিষ্ট ফি নির্ধারণ করে দেওয়া হবে। তবে এ সুযোগ সবাইকে নিতে হবে এমনটা নয়। যারা নিজেরা সবকিছু করতে পারেন তারা নিজেরাই করবেন। কেউ চাইলে এজেন্টদের মাধ্যমে পাসপোর্ট সংক্রান্ত সবকিছু করে নিতে পারবেন।’

About the author

CrimeSearchBD