ক্রাইম রাজধানী

পায়ুকামী শিক্ষক শরীফ গ্রেফতার

Written by CrimeSearchBD

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানাধীন কুতুবখালীতে অবস্থিত নূরানী ও হাফিজিয়া মাদ্রাসায় দীর্ঘদিন যাবত ছাত্র বলাৎকারের অভিযোগে গত শুক্রবার নারায়ণগঞ্জ এর রুপগঞ্জ থেকে মাদ্রাসা শিক্ষক শরীফুল ইসলাম কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শিক্ষক শরীফুল ইসলামের বিরুদ্ধে মাদ্রাসার আবাসিক ছাত্রদের বলৎকার করার অভিযোগ পাওয়া যায়। উক্ত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অনুসন্ধানে নামে ক্রাইম সার্চ এবং দৈনিক আমার সময়ের অনুসন্ধানী টিম। ছাত্র বলাৎকারের বিষয়টি দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে একাধিক পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করা হয়। সংবাদটি প্রশাসনের নজরে আসা মাত্র যাত্রাবাড়ী থানার চৌকস অফিসার ইনচার্জ( ওসি) মাজহারুল ইসলামের নেতৃত্বে অভিযুক্ত শিক্ষক শরীফুল ইসলাম কে নারায়নগঞ্জের রুপগঞ্জ থেকে আটক করা হয়। যাত্রাবাড়ী থানার পুলিশ জানায়, আসামী শরিফুল ইসলামকে রিমান্ডে এনে এ বিষয়ে জিঙ্গাসাবাদ করা হলে তিনি বলেন, “আমি মাদ্রাসা থেকে অব্যাহতি পত্র চাইলে মাদ্রাসা কমিটি আমাকে নিয়ে ষড়যন্ত্র শুরু করে এবং এই ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে মাদ্রাসার কয়েকজন ছাত্রকে দিয়ে আমার বিরুদ্ধে এই মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেন। তিনি আরও বলেন এই মাদ্রাসাটি আমার নিজের হাতে গড়া, এখানে রয়েছে আমার পরিশ্রমের সুফল। আপনারা আমাকে সহযোগিতা করুন। আমাকে এই মিথ্যা অভিযোগ থেকে বাঁচান।“ শিক্ষক শরিফুল ইসলামের এ অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত হওয়ার জন্য মাদ্রাসা কমিটির কাছে জানতে চাইলে তারা বিষয়টি এড়িয়ে যান।

আসামী গ্রেফতারের বিষয়টি জানতে চাইলে যাত্রাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মাজহারুল ইসলাম বলেন, পত্রিকায় সংবাদ দেখামাত্র অভিযানে নামে যাত্রাবাড়ী থানার চৌকস টিম। অভিযানে নারায়নগঞ্জের রুপগঞ্জ থেকে আসামী শরিফুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এলাকাবাসী বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এভাবে চলতে থাকলে আমাদের সন্তানদের নিরাপত্তা কে দিবে? তাছাড়া মানুষ মাদ্রাসায় ধর্মীয় শিক্ষার প্রতি আস্থা হারিয়ে ফেলবে। আমরা এর দ্রৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবী করছি।

About the author

CrimeSearchBD