রাজধানী

মানুষের অনিয়ন্ত্রিত চলাচল রোধে ডিএমপির কদমতলী থানা পুলিশের তৎপরতা ছিলো চোঁখে পড়ার মতো

Written by CrimeSearchBD

এম এ কালাম,ঢাকাঃ- করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সারাদেশব্যাপী চলছে সর্বাত্মক লকডাউন। লকডাউন কার্যকর করতে দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছে পুলিশ বাহিনীসহ অন্যান্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।
লকডাউন কার্যকর করতে ডিএমপির কদমতলী থানা পুলিশের তৎপরতাও ছিলো চোঁখে পড়ার মতো। গতকাল রবিবার সকালে কদমতলী থানাধীন ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের রায়েরবাগে চেকপোস্টে দায়িত্বপালন করছিলেন পুলিশের এসআই কাছেদ মুন্সি, এসময় তিনি জরুরী প্রয়োজন ব্যতিত বাইরে বের হওয়া মানুষের ঘুরাঘুরি করা রোধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করেন।
চেকপোস্টে দায়িত্বপালন কালীন এসআই কাছেদ মুন্সির কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, গত ১লা জুলাই থেকে সারাদেশে শুরু হয়েছে সর্বাত্মক লকডাউন এ লকডাউনে সাধারণ মানুষের বাইরে চলাচলের ক্ষেত্রে কিছু বিধিনিষেধ রয়েছে। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হওয়া মানুষকে প্রশ্নবিদ্ধ হতে হচ্ছে, সুনির্দিষ্ট কারণ দেখা না পাড়লে আমরা যানবাহনগুলো আটকে দিচ্ছি আর জরুরী প্রয়োজনে বাইরে বের হওয়া মানুষদের নির্দিষ্ট গন্তব্যস্থানে পৌঁছাতে আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাচ্ছি। বিনা প্রয়োজনে বাইরে বের হওয়া মানুষদের চলাচলের ক্ষেত্রে আমরা তাদের নিরুৎসাহিত করছি।
এসময় হাইওয়ে রাস্তার উপর প্রচুর রিকশার আনাগোনা দেখা যায় যা নিয়ন্ত্রণে বেগ পেতে হয় পুলিশ বাহিনীকে। গত দুইদিনে ২-৪টি দুর্ঘটনাও ঘটেছে এই মহাসড়কে। ডিসি ওয়ারী মহোদয়ের নির্দেশনা বাস্তবায়নে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করেন কদমতলী থানা পুলিশ।
প্রসঙ্গত, গত ১লা জুলাই থেকে সারাদেশে শুরু হয়েছে সর্বাত্মক লকডাউন। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত রাস্তায় চলাচলের ক্ষেত্রে এ বিধিনিষেধ বলবৎ থাকবে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

About the author

CrimeSearchBD