আন্তর্জাতিক

বিরোধী দলের চুক্তি সম্পন্ন, নেতানিয়াহুর সময় শেষ!

Written by CrimeSearchBD

ইসরায়েলের পার্লামেন্টে অনুষ্ঠিত ভোটে দেশটির ১১তম প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন দেশটির প্রবীণ রাজনীতিক হারজোগ আইস্যাক। গতকাল বুধবার ইসরায়েলের পার্লামেন্ট নেসেটে ভোটে তিনি নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। একদিকে পার্লামেন্টে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন হয়েছে, অন্যদিকে ইহুদি রাষ্ট্রটির প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে গদি থেকে সরাতে জোটবদ্ধ হয়েছে বিরোধী দলগুলো। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, দেশটির প্রধান বিরোধীদলের নেতা ইয়ার লাপিদ নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে বর্তমান প্রেসিডেন্ট রিউভেন রিভলিনকে আট দলের এই চুক্তির বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন।

বিবিসির খবরে আরও বলা হয়, প্রেসিডেন্ট রিউভেন রিভলিনকে ইয়ার লাপিদের দল ইয়েশ আতিদসহ যে আটটি দলের চুক্তির বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন তা হলো- বেনি গান্তজের নেতৃত্বাধীন কাহোল লাভান, আভিগদোর রিয়েবারমানের নেতৃত্বাধীন ইসরায়েল বেইতেইনু, মেরাভ মিশেইলির নেতৃত্বাধীন লেবর, নাফতালি বেনেতের নেতৃত্বাধীন ইয়ামিনা পার্টি, গিডেউন সা’রের নেতৃত্বাধীন নিউ হোপ, নিতজান হরোউইটস’র নেতৃত্বাধীন মেরেটজ, মনসুর আব্বাসের মনসুর আব্বাস রাম (আরব ইসলামিস্ট)।

চুক্তি অনুযায়ী এই জোটের নেতৃত্বে থাকবে ডানপন্থী ইয়ামিনা পার্টি। সরকার গঠনের পর দলটির প্রধান নাফতালি বেনেত প্রথম দুই বছর ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রীত্ব করবেন। এরপর তিনি ইয়ার লাপিদের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করবেন। এই চুক্তি বাস্তবায়ন হলেই শেষ হয়ে যাবে নেতানিয়াহুর সময়। যদিও গদি বাঁচাতে ব্যাপক তদবির করছেন তিনি।

তবে, এই দুই নেতার হাতে ক্ষমতা যাওয়ার আগে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মতোই ভোট হবে। পার্লামেন্টের সেই ভোটে তাদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে হবে। ইসরায়েলের পার্লাামেন্টের মোট আসন ১২০। নেতৃত্ব পেতে নেসেটে সরকারের ৬১টি আসন প্রয়োজন হয়। গত দুই বছরে ধরে দফায় দফায় নির্বাচন হলেও এত সংখ্যক আসন কোনো দলই জয় করতে পারেন। যে কারণে, রাষ্ট্রটিকে এবার জোট সরকারের দিকে যেতে হচ্ছে।

বুধবার ১১ ঘণ্টার বৈঠক ও চুক্তি শেষে ইসরায়েলে সরকার গঠনের বিষয়ে একটি বিবৃতি দেন ইয়ার লাপিদ। প্রেসিডেন্টকে চুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি বলেন, ইসরায়েলের জনগণ যারা সরকার গঠনে ভোট দেবেন বা দেবেন না; আমাদের সরকার দেশের প্রতিজন নাগরিকের জন্য কাজ করবে, আমি কথা দিচ্ছি। সরকার গঠন হলেও বিরোধীদের সম্মান করা হবে। ইসরায়েলে পরিপূর্ণ ঐক্য গঠন করা হবে।

বিবিসি একটি ছবি প্রকাশ করেছে, যেখানে লাপিদ, বেনেত এবং আরব ইসলামিস্ট রাম পার্টির নেতা মনসুর আব্বাসকে দেখা যায়। চুক্তি সইয়ের পর ছবিটি তোলা হয়েছে বলে জানায় সংবাদমাধ্যমটি।

জোট সরকার ইসরায়েলের ক্ষমতায় আসছে বলেই ধরা যায়। এতে করে প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর টানা ১২ বছরের শাসনের অবসান ঘটবে। নেতানিয়াহুকে অপসারণের উদ্যোগ নেওয়া হলেও নতুন প্রেসিডেন্ট তাকে ও রাষ্ট্রের অপরাধীদের ক্ষমা ঘোষণা করতে পারেন। নেতানিয়াহু ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে প্রতারণা, ঘুষগ্রহণ এবং বিশ্বাস ভঙ্গের অভিযোগ রয়েছে।

বর্তমান প্রেসিডেন্ট রিউভেন রিভলিন তার দায়িত্ব ছাড়তে পারেন আগামী ৯ জুলাই। এদিন নিজের দায়িত্ব বুঝে নেবেন হারজোগ আইস্যাক। ২০০৩ সালে ইসরায়েলের পার্লামেন্টে প্রথমবারের মতো নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পাড়ি জমানো ইহুদিদের সঙ্গে সরকারের সম্পর্ক রক্ষায় নিয়োজিত আধা-সরকারি সংস্থা ইসরায়েলি ইহুদি সংস্থার প্রধান হিসেবে সম্প্রতি দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

About the author

CrimeSearchBD