আন্তর্জাতিক

ইসরাইলি হামলায় বাস্তুচ্যুত ৫২ হাজার ফিলিস্তিনি

Written by CrimeSearchBD

গাজায় দখলদার ইসরাইলের বর্বর বিমান হামলায় এ পর্যন্ত ৫২ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি বাস্তুচ্যুত হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ। এ ছাড়া ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় সাড়ে ৪শ ভবন। মঙ্গলবার জাতিসংঘের অফিস ফর দ্য কো-অর্ডিনেশন অব হিউম্যানিটেরিয়ান অ্যাফেয়ার্সের (ওসিএইচএ) মুখপাত্র ইয়েন্স লেয়ার্কে বলেন, গাজায় জাতিসংঘের পরিচালিত ৫৮টি স্কুল রয়েছে। এতে প্রায় ৪৭ হাজার ফিলিস্তিনি আশ্রয় নিয়েছেন। তিনি জানান, ইসরাইলি বিমান হামলায় গাজার ১৩২টি ভবন ধ্বংস হয়েছে। এ ছাড়া ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৩১৬টি ভবন। এর মধ্যে রয়েছে ৬টি হাসপাতাল ও ৯টি প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র। হিংস্র এই হামলায় সুপেয় পানির সঙ্কটে পড়েছেন প্রায় আড়াই লাখ গাজাবাসী।
এদিকে ইসরাইলের বিমান হামলা নিয়ে মঙ্গলবার বিবৃতি দিয়েছে যুক্তরাজ্যের লন্ডনভিত্তিক বেসরকারি মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। সংগঠনটি ইসরাইলের এই হামলাকে যুদ্ধাপরাধ বলে আখ্যা দিয়েছে। অন্যদিকে গাজায় ভয়াবহ হামলা অব্যাহত রেখেছে ইসরাইলি বাহিনী। বুধবারও বেশ কয়েকেটি ভবন পুরোপুরি গুঁড়িয়ে দিয়েছে দখলদাররা। ফিলিস্তিনের ওয়াকফ মন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে দেশটির সংবাদ মাধ্যম ‘ফিলিস্তিন আল য়াউম’ জানিয়েছে, গত কয়েকদিনে ইসরাইলি হামলায় অন্তত তিনটি মসজিদ পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে গেছে এবং ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আরও ৪০টি। বোমাবর্ষণের আশঙ্কায় গাজার আরও ৪২টি মসজিদ সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে। এদিকে গত মঙ্গলবার রাতে মাত্র ২৫ মিনিটে উপত্যকার বিভিন্ন এলাকায় ১২২টি শক্তিশালী বোমা নিক্ষেপ করা হয়। তারা গাজায় হামাসের সুড়ঙ্গ ও ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত অন্তত ৬৫টি স্থানে হামলার দাবি করেছে। হামলায় অন্তত ৬০টি যুদ্ধবিমান ব্যবহার করেছে ইসরাইলি বাহিনী।

ইসরাইলি সেনাবাহিনীর মুখপাত্র হিদাই জিলম্যান প্রেস ব্রিফিংয়ে দাবি করেন, মাত্র আধা ঘণ্টায় তারা ৬৫টি স্থানে আঘাত হানতে সক্ষম হয়েছে। হামাসের কয়েক কিলোমিটার দীর্ঘ সুড়ঙ্গ ধ্বংস করছে ইসরাইলি বিমানবাহিনী। তবে তার এই দাবির সত্যতা নিশ্চিত করে এখনও কোনো বার্তা দেয়নি হামাস। গাজায় এই হামলায় ইউসেফ আবু হুসেন নামে এক সাংবাদিক নিহত হয়েছেন। তিনি ‘আল-আকসা ভয়েস’ নামে একটি রেডিওতে কাজ করতেন।
হামলায় নিহত ফিলিস্তিনিদের সংখ্যা বেড়ে ২২০ জনে দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে ৬৩ জন শিশু। এ ছাড়া আহত হয়েছে অন্তত দেড় হাজার ফিলিস্তিনি। অন্যদিকে হামাসের পাল্টা হামলায় ইসরাইলের তিন সেনাসহ ১২ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে অন্তত ৩শ জন। খবর আল-জাজিরার।
সহিংস এই পরিস্থিতির মধ্যে হামলা আরও জোরদার করার হুমকি দিয়েছেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। ইসরাইলে ‘শান্তি ফেরাতে’ যতদিন প্রয়োজন ততদিন ফিলিস্তিনের গাজায় হামলা চলবেÑ এমন বক্তব্য দিয়েছেন তিনি। তার এই বক্তব্য ন্যক্কারজন বলে মন্তব্য করেছেন বিশে^র শান্তিকামী নেতারা। বিবিসি জানিয়েছে, গাজায় ৯ দিনের গোলাবর্ষণে ‘হামাস অনেক বছর পিছিয়ে পড়েছে’ বলেও মন্তব্য করেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী। হামাস ‘অপ্রত্যাশিত আঘাতের’ মুখোমুখি হয়েছে দাবি করে নেতানিয়াহু বলেন, ইসরাইলি জনগণের মধ্যে ‘শান্তি’ ফেরাতে যতদিন প্রয়োজন হামলা চলবে।

About the author

CrimeSearchBD