আইন-আদালত সারাদেশ

গুজবে বিভ্রান্ত না হতে আহ্বান শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের

স্থগিত হওয়া এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার দিন-তারিখ এখনও ঠিক করা হয়নি। করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে স্থগিত হওয়া এই পরীক্ষায় প্রায় ১২ লাখ পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। ১ এপ্রিল থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরুর কথা থাকলেও করোনাভাইরাস মহামারির কারণে তা স্থগিত রয়েছে। দেশের সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে ১৭ মার্চ থেকে। সেই ছুটির মেয়াদ ৩ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।
প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা এবং স্থগিত এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার দিন-তারিখ নিয়ে ফেসবুকে ছড়ানো গুজবে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহŸান জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।
শনিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয় এ প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা এবং এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।
এতে বলা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে লক্ষ করা যাচ্ছে যে, সোশ্যাল মিডিয়ায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নামে ভুয়া ফেসবুক পেজ ও প্রোফাইল খুলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া এবং এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা সংক্রান্ত বিভিন্ন কাল্পনিক তারিখ ঘোষণা করে শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। এ বিষয়ে শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের সতর্ক থাকার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য হলোÑ স্বাস্থ্যঝুঁকি থাকায় কখন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে এবং কখন এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত এখনও নেওয়া হয়নি। পরীক্ষা নেওয়ার উপযুক্ত পরিস্থিতি হলে তখন পরীক্ষা নেওয়া হবে এবং পরীক্ষার তারিখ গণমাধ্যমের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। উপযুক্ত পরিবেশ বিরাজমান হলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
গরহরংঃৎু ড়ভ বফঁপধঃরড়হ, ইধহমষধফবংয নামে একটি পেজ থেকে ১২ আগস্ট এক পোস্টে বলা হয়েছে, ‘প্রিয় ছাত্রছাত্রীগণ, আগামী ৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ সব স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়া হবে।’ গরহরংঃৎু ড়ভ বফঁপধঃরড়হ নড়ধৎফ পেজ থেকে শুক্রবার সন্ধ্যা ৭টা ৫৮ মিনিটে এক পোস্টে বলা হয়, ‘এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত চ‚ড়ান্ত : স্বাস্থ্যবিধি মেনে অক্টোবরের ১৫ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে এইচএসসি পরীক্ষা। রুটিন প্রকাশিত হবে ১ অক্টোবর।’ ওই পেজ থেকে শনিবার সকাল ১০টা ৩৮ মিনিটে আরেক পোস্টে বলা হয়েছে, ‘এইচএসসি পরীক্ষা আয়োজনের জন্য ১৫ অক্টোবরকে সামনে শিক্ষার্থীদের মানসিকভাবে প্রস্তুত হওয়ার আহŸান জানাচ্ছি।’
এই তথ্যকে মিথ্যা ও কল্পনাপ্রসূত হিসেবে অভিহিত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। ভুয়া কোনো পেজের বা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের তথ্য বিশ^াস না করার আহŸান জানিয়ে প্রয়োজনে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজে (যঃঃঢ়ং://িি.িভধপবনড়ড়শ.পড়স/সড়বনফমড়া) এসব বিষয়ে নজর রাখার অনুরোধ জানানো হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়ানো গুজবে কান না দিয়ে শিক্ষার্থীদের মনোযোগ দিয়ে লেখাপড়া চালিয়ে যেতে আহŸান জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

About the author

CrimeSearchBD

%d bloggers like this: