সারাদেশ

কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতিতে হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দী

Written by CrimeSearchBD

ধরলার পানি বিপৎসীমার ৬২ ও ব্রহ্মপুত্রের বিপৎসীমার ৬৪ সেন্টিমিটার পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। রবিবার সকালে ধরলা ও ব্রহ্মপুত্রের পানি বিপৎসীমা অতিক্রম এভাবে প্রাবাহিত হওয়ার ফলে তিন শতাধিক চর ও নদী সংলগ্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দী হয়ে পড়েছে হাজার হাজার মানুষ।

বন্যা কবলিত এলাকায় প্রায় ২ হাজার হেক্টর জমির ফসল তলিয়ে গেছে। তবে প্রবল বর্ষণের কারণে খোলা আকাশের নিচে অবস্থান নেয়া পরিবারগুলোর দুর্ভোগ চরমে উঠেছে।

এদিকে পানির প্রবল চাপে রাজারহাটের কালুয়ারচর, সদর উপজেলার সারডোবসহ বেশ কয়েকটি স্থানে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ঝুঁকির মুখে পড়েছে। এ বিষয়ে কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আরিফুল ইসলাম জানিয়েছেন, ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধ রক্ষার জন্য জরুরি ভিত্তিতে বালুর বস্তা ফেলাসহ দিন-রাত তদারকি ও মনিটরিং কাজ করা হচ্ছে।

কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম জানান, ভাঙন কবলিতদের সরিয়ে আনতে কাজ করছে উপজেলা প্রশাসন। এছাড়াও শুক্রবার বন্যা ও ভাঙন কবলিত উপজেলাগুলোতে ৩০২ মেট্রিক টন চাল ও ৩৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে।

About the author

CrimeSearchBD

%d bloggers like this: