জাতীয় সংবাদ

আরব আমিরাতে আইপিএল আয়োজনের প্রস্তাব

Written by CrimeSearchBD

করোনা আতঙ্কে ফ্রাঞ্চাইজিভিত্তিক বিশ্বের সবচেয়ে জমজমাটপূর্ণ টি-টোয়েন্টি লিগ আইপিএল অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড অব কন্ট্রোল (বিসিসিআই) জানিয়েছে ঠিক কবে নাগাদ আইপিএল মাঠে গড়াবে তা এখনও বলা যাচ্ছে না। তবে এর মধ্যেই শ্রীলঙ্কা নিজেদের দেশে আইপিএল আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছে, এবার সেই তালিকায় যুক্ত হয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতও।

এর আগেও অবশ্য আইপিএলের ২০টি ম্যাচ সেদেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০১৪ সালে ভারতের জাতীয় নির্বাচনের সময় মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশে আইপিএল অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

বিসিসিআইয়ের কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধামাল অবশ্য দেশের বাইরে আইপিএল আয়োজনের সম্ভাবনা এখনই দেখতে পারছেন না।

এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘আরব আমিরাত আইপিএল আয়োজন করতে আগ্রহ দেখিয়েছে। তবে এখন আন্তর্জাতিক ভ্রমণ একেবারেই অসম্ভব, তাই এই বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় আসেনি।’

আইপিএল স্থগিত হওয়ার পর, নতুন কোন সময়ে এই টুর্নামেন্ট আবারও মাঠে ফেরানো যায় তা নিয়ে ভাবনায় মগ্ন বিসিসিআই। কিছু স্টেডিয়ামকে সম্পূর্ণভাবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে তথা নিরাপদ বানিয়ে সেগুলোতে ম্যাচ আয়োজন করা যায় কি না তাও ভেবে দেখছে সংস্থাটি।

তবে বর্তমানে ভারতে করোনার হটস্পটের সংখ্যা অনেক বেশি হওয়াতে এই পরিকল্পনা নিয়ে এখনই আশার বাণী শোনাচ্ছে না বিসিসিআই। অবশ্য এখনই আইপিএল বিদেশে আয়োজনের সিদ্ধান্তে আসছে না বিসিসিআই, ধামালের বক্তব্যে তেমনটাই উঠে এসেছে।

এই কর্মকর্তা বলেন, ‘খেলোয়াড় এবং অংশগ্রহণকারী প্রতিটি ব্যক্তির স্বাস্থ্য এবং নিরাপত্তাকে আমরা অগ্রাধিকার দিচ্ছি। আর বর্তমানে সারা বিশে^ই ভ্রমণ প্রায় নিষিদ্ধ, এমন অবস্থায় বিদেশে আইপিএল আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেওয়া সম্ভব নয়।’

আইপিএল মানেই সোনার ডিম পাড়া হাঁস। যেদেশেই পা রেখেছে সে দেশের ক্রিকেট বোর্ডকে ভাসিয়েছে বড় অর্থনৈতিক লাভে। এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকা এবং আরব আমিরাত আইপিএল আয়োজন করে বড় লাভের মুখ দেখেছে।

দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটের টার্নওভার বেড়ে গিয়ে পৌঁছেছিল ১১ দশমিক ৪ মিলিয়ন ডলারে। আর ২০১৪ সালে আরব আমিরাত আইপিএল আয়োজন করে আর্থিক দিক দিয়ে খুব বেশি মুনাফা না করলেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ভেন্যু হিসেবে পরিচিতি পেয়েছিল দেশটি।

তাই আইপিএল আয়োজনে এবার আগে থেকেই নিজেদের আগ্রহের বিষয়ে বিসিসিআইকে জানিয়ে রাখল দেশটি।

গত ২৯ মার্চ আইপিএলের এবারের আসর মাঠে গড়ানোর কথা ছিল। তবে করোনা মহামারীর কারণে তা ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত করা হয়। এরপরেও পরিস্থিতি নিরাপদ না হওয়ায় অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করা হয় আইপিএল।

How Is My Site? Is it user friendly?

View Results

Loading ... Loading ...

About the author

CrimeSearchBD

%d bloggers like this: